Phulkuri Ashar | ফুলকুঁড়ি আসর

সাংগঠনিক কাঠামো

সাংগঠনিক কাঠামো


সারা দেশের কার্যক্রম তত্ত্বাবধান ও সমন্বয় করার জন্য কেন্দ্রীয় উপদেষ্টা পরিষদ ও কেন্দ্রীয় কর্মীপরিষদ নিয়ে কেন্দ্রীয় সংগঠন গঠিত।

কেন্দ্রীয় উপদেষ্টা পরিষদ
সভাপতি, সহ-সভাপতি, প্রধান পরিচালক, কোষাধ্যক্ষ, পাঁচজন বিভাগীয় উপদেষ্টা ও প্রয়োজনীয় সংখ্যক উপদেষ্টা নিয়ে কেন্দ্রীয় উপদেষ্টা পরিষদ গঠিত হয়।

কেন্দ্রীয় কর্মিপরিষদ
প্রধান পরিচালক, সহকারী প্রধান পরিচালক, অফিস সম্পাদক, অর্থ সম্পাদক, প্রকাশনা সম্পাদক, পাঁচ বিভাগের পাঁচজন সম্পাদক, ফুলমেলা সম্পাদক, পত্রিকা বিষয়ক সম্পাদকের সমন্বয়ে কেন্দ্রীয় কর্মিপরিষদ গঠিত হবে। প্রয়োজনবোধে কর্মীপরিষদের পদ ও সদস্য সংখ্যা বাড়ানো যেতে পারে।

 

কেন্দ্র


সারা দেশের  কার্যক্রম তত্বাবধান ও সমন্বয় করার জন্য কেন্দ্রীয় উপদেষ্টা পরিষদ ও কেন্দ্রীয় কমীপরিষদ নিয়ে কেন্দ্রীয় সংগঠন গঠিত।

 

শাখা


শহর, জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে ফুলকুঁড়ি আসরের যাবতীয় কার্যক্রম কেন্দ্রীয় সংগঠনের অনুমোদনক্রমে শাখা সংগঠন পরিচালিত হয়। কেন্দ্রীয় আসরের অনুকরণে উপদেষ্টা পরিষদ ও কর্মীপরিষদ নিয়ে শাখা সংগঠন পরিচালিত হয়।

 

আসর


আসর হচ্ছে সংগঠনের প্রাথমিক ইউনিট। কমপক্ষে ১৫ জন সদস্য থাকলে শাখার অনুমোদন নিয়ে আসর গঠিত হয়। আসরে অবশ্যই কর্মিপরিষদ থাকতে হবে। একটি আদর্শ আসরের জন্য ৭টি বৈশিষ্ট্য থাকতে হবে-
১। কর্মিপরিষদ
২। উপদেষ্টা পরিষদ
৩। পাঠাগার
৪। খেলার সরঞ্জাম ও মাঠ
৫। মাঠের কাজের প্লাটুন
৬। যোগাযোগের জন্য অফিস
৭। নিয়মিত কর্মসূচী বাস্তবায়ন

 

ফুলমেলা


ফুলকুঁড়ির প্রাক্তন সদস্য ও সংগঠকদের নিয়ে ফুলমেলা অনুষ্ঠিত হবে।